শুক্রবার , জুন ১৮ ২০২১
Home / সারা দেশ / তাহিরপুরে মদ্যপান অবস্থায়  ইউপি সদস্য কর্তৃক ইমাম লাঞ্চিতের ঘটনা! আলোচনায় সমাধান

তাহিরপুরে মদ্যপান অবস্থায়  ইউপি সদস্য কর্তৃক ইমাম লাঞ্চিতের ঘটনা! আলোচনায় সমাধান

কামাল হোসেনঃ সুনামগঞ্জ( প্রতিনিধি)
সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার উত্তর শ্রীপর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য হাসান মিয়া কর্তৃক স্থানীয় মসজিদের ইমাম মাওলানা ওমর ফারুকে মারধর ও লাঞ্চিত করার ঘটনা সৃষ্ট ভুল বোঝাবোঝির আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করেন স্থানীয় জনপ্রতিনি ও এলাকার গণ্যমাণ্য ব্যক্তিবর্গ।
আজ (১ জুন) মঙ্গলবার বিকালে উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের বাশঁতলা দারুল হেদায়েত হাদিস উলুম মাদ্রাসা প্রাঙ্গনে এক আলোচনা সভার মাধ্যমে ইউপি সদস্য হাসান মিয়া ও মাওলানা ওমার ফারুকের মধ্যে ভুল বোঝা বোঝির সৃষ্ট জটিলতা দুই পক্ষের লোকজন উপস্থি’ত তাদেও সম্মতি ক্রমেই তার সুষ্ঠ সমাধান সভায় উপস্থি’ত আলোচকগণ। পরবর্তীতে ইমাম ও জনপ্রতিনিধির মধ্যে এ ধরনের জটিলতা যাতে আর না ঘটে এতে উভয় পক্ষই একমত হয়ে তার সমাধন করা হয়।
এ সময় আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন, শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযুদ্ধা আমির উদ্দিন, শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের ২নং ওয়ার্ড সভাপতি আব্দুল খালেক, সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলম, বাশঁতলা দারুল হেদায়েত হাদিস উলুম মাদ্রাসার সভাপতি মোতালী, বাক্কার মিয়া, প্রমুখ।
বাশঁতলা দারুল হেদায়েত হাদিস উলুম মাদ্রাসার ইমাম মাও উমর ফারুক বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, হাসান মেম্বারের সঙ্গে আমার ভূল বুঝবিুঝি হয়েছিল। আজ আলোচনার মাধ্যমে তা সমাধান হয়েছে।
শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পদক ও ওয়ার্ড সদস্য হাসান মিয়া বলেন, গত রবিবার এক আলোচনা সভায় ইমাম সাহেবের সঙ্গে একটি বিষয় নিয়ে আমার একটু ভুল বুঝাবুঝি হয়েছিল। তা আজ নিজেরা বসে আলোচনার মাধ্যমে তা শেষ হয়েছে।
শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযুদ্ধা আমীর উদ্দিন ও মাদ্রাসার সভাপতি মোতালী বলেন, তুচ্ছ বিষয় নিয়ে জনপ্রতিনিধি হাসান মিয়া ও মাদ্রাসার ইমাম মাও  উমর ফারুকের মধ্যে অনেক বড় একটি সংঘাতের সৃষ্টি হতে যাচ্ছিল। বিষয়টি নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে আলোচনা করে তা সুন্দর ভাবে সমাধান করা হয়েছে।
প্রঙ্গসত, গত (৩০ মে রবিবার) উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের জঙ্গলবাড়ী জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে কথিত একটি মাজারের গান বাজনা নিয়ে এক আলোচনা সভায় মাদ্রাসার ইমাম মাওলানা উমর ফারুক কে মদ্যপায় অবস্থায় লাতিঞ্চত করার অভিযোগ উঠে ইউপি সদস্য হাসান মিয়ার বিরোদ্ধে। এই নিয়ে ওই দিন বিকালে এলাকার ইমামগণরা ও মাদ্রিাসার ছাত্রদের নিয়ে ইউপি সদস্য হাসানের বিচারের দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল করে। এনিয়ে এক পর্যায়ে হাসান মেম্বারের লোকজন ও ইমামদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিলে আজ(১ জুন মঙ্গলবার) জনপ্রতিনিধি, গণ্যমাণ্য ব্যক্তিবর্গ ও মাদ্রাসার সভাপতিসহ এলাকার সকল ইমামদের নিয়ে আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টি বিষয়টি নিষ্পত্তি করা হয়।

Check Also

পিঠে টিউমার নিয়ে  জন্ম সন্তানকে বাঁচাতে দরিদ্র বাবা মাযের করুন আকুতি  !!! 

  মোস্তাফিজুর রহমানঃ জেলা প্রতিনিধি (লালমনিরহাট) মায়ের কোলে ১০ দিনের ‘শিশু’ আয়শা সিদ্দিকা কান্না করছে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: