শুক্রবার , জুন ১৮ ২০২১
Home / সারা দেশ / শ্রীপুরে ঋণের কিস্তি ব্যবস্থা করতে না পেরে যুবকের আত্নহত্যা

শ্রীপুরে ঋণের কিস্তি ব্যবস্থা করতে না পেরে যুবকের আত্নহত্যা

রোমান আহমেদ (গাজীপুর)

গাজীপুরের শ্রীপুর টেলিহাটি ইউনিয়নের ১ং ওয়ার্ড ডোমবাড়ি চালা এলাকায় রোবেল(৩৫) নামক এক প্রতিবন্ধী যুবকের কিস্তির টাকা না দিতে পেরে বিষ পানে আত্নহত্যার ঘটনা ঘটে।

০১/০৫/২০২১ খ্রি. রোজ শনিবার
শ্রীপুর উপজেলা তেলিহাটি ইউনিয়ন ডোমবাড়ি চালা এলাকার মোঃ মোতালিব মিয়ার ছেলে রোবেল (৩৫) নামক এক প্রতিবন্ধী যুবক, ময়মনসিংহ মাস্টার বাড়ি শাখার পিদিম নামক এক বেসরকারি এনজিও সংস্থা থেকে ২২ হাজার টাকা ঋণ নেয়। সঠিক সময়ে পরিশোধের কথা থাকলেও অভাব অনটনের সংসারে কাজ করতে না পাড়া রোবেল হিমসিম খায়। কিস্তি তার জন্য এক বিশাল পাহাড়ের ন্যায়, যা দিতেও তাকে অনেক হিমসিম খেতে হয়। সময় মতো পরিশোধও করা সম্ভব হয়ে উঠেনা রোবেলের।

০১/০৫/২০২১ খ্রি. রোজ শনিবার
প্রতি মাসের মতো এই মাসেও কিস্তি দেওয়ার কথা রোবেলের। কিন্তু প্রতিবন্ধী ঐ যুবক কোনো কাজ করতে না পারায় কিস্তি যোগার করতে অক্ষম হয়ে পরে, এমতাবস্থায় এনজিও তার কাছে কিস্তি চেয়ে চাপ দিতে থাকে। কিস্তি সংগ্রহ না করতে পারায়, রোবেল লজ্জায় নিজের বসত বাড়ির পূর্ব ভিটার ঘরে বিষ পান করে আত্নহত্যা করে।

রোবেলের স্ত্রী মোছাঃ সেলিনা খাতুন (৩০)

গণমাধ্যমে তার বক্তব্যে বলেন।আমার স্বামী একজন শারীরিক প্রতিবন্ধী। সে কোনো প্রকার  কাজ কর্ম করতে পারেনা। আমাদের ২ ছেলে ও ১ মেয়েকে নিয়ে অভাব অনটনের সংসার। এই অভাব অনটনের জন্য সে প্রিদিম নামক এক এনজিও থেকে ২২০০০ টাকা উত্তোলন করে কিস্তি সময় মতো পরিশোধের কথা থাকলেও অভাবের কারণে তা সম্ভব হয়ে উঠেনি। এনজিওর লোকজন আমাদের বাসায় এসে কিস্তির জন্য তাগাদা দিতে থাকে।কিন্তু সে দিতে পারেনা বলে এনজিওর লোকজন বাড়ি থেকে যাবার পর দুঃখ কষ্টে অদ্য আনুমানিক ১২ টার সময় আমাদের পূর্ব ভিটির ঘরে গিয়ে বিষ পান করে পশ্চিম ভিটির ঘরে এসে শুয়ে পরে। কিছুক্ষণ পর তার অসহ্যকর ঘংরানির শব্দ পেয়ে আমি ঘরে যায় গিয়ে তার অবস্থা খারাপ দেখে ডাক চিৎকার করি পরে লোক জন আসে এবং সঙ্গে সঙ্গে তাকে শ্রীপুর উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে যায়। ডাক্তার তাকে ওয়াশ করে অবস্থা খারাপ দেখে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে রেফার্ড করে পরে আমার স্বামীকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে অদ্য দুপুর আনুমানিক ২টার দিকে ভালুকার কাছাকাছি গিয়ে মারা যায়।

এ বিষয়ে উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের ১ং ওয়ার্ডের সদস্যা জনাব তারেক হাসান বাচ্চু (মেম্বার) এর সাথে যোগাযোগ করলে গণমাধ্যমকে তিনি জানান
আমার ১ং ওয়ার্ডের ডোমবাড়ি চালা এলাকার মোঃ মোতালিব মিয়া ছেলে রুবেল পিদিম নামে একটি এনজিও (স্কয়ার মাস্টারবাড়ী শাখা) থেকে সে কিস্তি আনে। পরবর্তীতে তা পরিশোধ করতে পারছিলো না বলে অফিসাররা তাকে কিস্তির জন্য চাপ দেয়। কিস্তি পরিশোধ করতে না পারায় অফিসারদের চাপের কারণে আজ সকালে বিষ পান করলে পরিবারের সদস্যরা প্রথমে শ্রীপুর উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে পরে আরো উন্নত চিকিৎসার ময়মনসিংহ নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। মারা যাওয়ার পূর্বে মরহুম রুবেল ২ছেলে ও ১মেয়ে রেখে যান। তিনি আরও জানান মোতালিবের ৬ ছেলের মধ্যে রোবেল ৫ম।

Check Also

তাহিরপুরে মদ্যপান অবস্থায়  ইউপি সদস্য কর্তৃক ইমাম লাঞ্চিতের ঘটনা! আলোচনায় সমাধান

কামাল হোসেনঃ সুনামগঞ্জ( প্রতিনিধি) সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার উত্তর শ্রীপর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য হাসান মিয়া কর্তৃক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: